Privet browsing কে ডিফল্ট ব্রাউজিং মাধ্যম হিসাবে ব্যবহার করুন

সবাইকে স্বাগতম আজকের পোস্টে। আজ আমরা আলোচনা করবো PRIVET BROWSING নিয়ে।

প্রাইভেট ব্রাউজিং অপশন হচ্ছে এমন একটি ব্যবস্থা যা আপনাকে আপনার ব্রাউজিং বিবরণী যেমন- হিস্টরি, কুকি প্রভৃতি জিনিস সংরক্ষণ করা ছাড়াই ব্রাউজার ব্যবহারের সুবিধা প্রদান করে। যার ফলে ব্রাউজার বন্ধ করার সাথে সাথে আপনার ব্রাউজ করা সকল ডাটা, কুকি, হিস্টোরি মুছে যাবে।

এই সুবিধাটি প্রায় সকল বাউজারেই ব্যবহার করা যায়। আর আপনি চাইলে কোন ব্রাউজার ওপেনের সাথে সাথে প্রাইভেট ভাবে ব্রাউজিং এর সুবিধা নিতে পারেন। অর্থাৎ আপনার ব্রাউজার ওপেনের সাথে সাথেই তা প্রাইভেট মোডে চলে যাবে।

Privet browsing কে ডিফল্ট ব্রাউজিং মাধ্যম হিসাবে ব্যবহারের জন্য নিচের পদ্ধতি গুলো অনুসরণ করুন-

  • মজিলা ফায়ারফক্স:

i)  মজিলা ফায়ারফক্স এর শর্টকাট আইকনে মাউস নিয়ে রাইট বাটন চাপ দিয়ে Properties সিলেক্ট করুন। এতে Properties বক্স পর্দায় প্রদর্শিত হবে।

ii)     Shortcut ট্যাবে গিয়ে Target বক্সে গিয়ে একদম শেষে গিয়ে লিখুন “-private”। অবশ্যই “-private” লিখার আগে একটি স্পেস দিয়ে নিন। অর্থাৎ আগের লাইনটি এবং “-private” লিখার মাঝে একটি স্পেস দিয়ে দিন।

1

iii)   Apply> OK চেপে বের হয়ে আসুন। এরপর থেকে আপনি ফায়ারফক্স চালু করলে তা প্রাইভেট মোডে চালু হবে।

 

  • গুগল ক্রোমঃ

গুগল ক্রোমে private browsing টি Incognito mode নামে পরিচিত। গুগল ক্রোমে ব্রাউজারের ভেতর থেকে সেটিং পরিবর্তন করে ডিফল্ট ভাবে private browsing করা যায় না। তাই এ ক্ষেত্রেও শর্টকাট এর properties-এ গিয়ে এডিট করে নিতে হবে।

i)  গুগল ক্রোমের শর্টকাটে মাউসের রাইট বাটন ক্লিক করে properties সিলেক্ট করুন। এতে করে প্রপার্টিজ বক্স দেখা যাবে।

ii)     Shortcut ট্যাব এ গিয়ে Target বক্সে গিয়ে লাইনের শেষে লিখুন “–incognito”। আগের লাইন ও “-incognito” লিখার মাঝে স্পেস ব্যবহার করুন।

2

iii)   Apply> Ok চেপে বের হয়ে আসুন। এরপর থেকে আপনি গুগল ক্রোম চালু করলে তা প্রাইভেট মোডে চালু হবে। চালুর পর বাঁপাশে উপরের দিকে প্রাইভেট ব্রাউজিং এর চিহ্ন দেখতে পাবেন।

 

  • অপেরা ব্রাউজারঃ

অপেরা ব্রাউজারে দুই পদ্ধতিতে private browsing করা যায়। ব্রাউজার ওপেন থাকা অবস্থায় নতুন প্রাইভেট ট্যাব ওপেন করে অথবা প্রপার্টিজ এডিট করে। তবে প্রোপারটিজ এডিট করলেও ব্রাউজার ওপেনের সাথে সাথে নতুন একটি প্রাইভেট ট্যাব-টি ওপেন হবে।

এজন্য আগের দুই ব্রাউজারের মতনই অপেরার properties এ গিয়ে shortcut ট্যাবের Target বক্সে থাকা লাইনের শেষে স্পেস দিয়ে লিখতে হবে “-newprivatetab”।

3

এতে করে পরবর্তীতে ব্রাউজার ওপেনের সাথে সাথে ডিফল্ট ভাবে নতুন প্রাইভেট ট্যাব খুলে যাবে।

4

  • মাইক্রোসফট ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার ৮:

ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার ৮ এর ক্ষেত্রে প্রাইভেট ব্রাউজিং InPrivate নামে পরিচিত। এই ব্রাউজারে প্রাইভেট মোডে ব্রাউজ করার জন্য নিচের পদ্ধতি অনুসরণ করুন।

  1.            i.     ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার ৮ এর শর্টকাট আইকনে মাউস নিয়ে রাইট বাটন চাপ দিয়ে Properties সিলেক্ট করুন। এতে Properties বক্স পর্দায় প্রদর্শিত হবে।
  2.          ii.     Shortcut ট্যাবে গিয়ে Target বক্সে গিয়ে একদম শেষে গিয়ে লিখুন “-private”। অবশ্যই “-private” লিখার আগে একটি স্পেস দিয়ে নিন। অর্থাৎ আগের লাইনটি এবং “-private” লিখার মাঝে একটি স্পেস দিয়ে দিন।

5

3.        iii.     Apply> OK চেপে বের হয়ে আসুন। এরপর থেকে আপনি ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার ৮ চালু করলে তা প্রাইভেট মোডে চালু হবার নোটিফিকেশন দেখতে পাবেন।

6

আশা করি এই পোস্ট আপনাদের উপকারে আসবে। সকলকে ধন্যবাদ।

Leave a Reply