সহজেই করে নিন ব্লু- স্ক্রিন সমস্যা (Blue Screen Error)-র সমাধান

নীল স্ক্রিন সমস্যা বা Blue Screen Error আমরা যারা উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করি তাদের জন্য অত্যন্ত বিরক্তিকর ও বিব্রত সমস্যা। আমাদের প্রায়শয়ই এই পরিস্থিতিতে পড়তে হয়। হঠাৎ করেই কাজের মাঝে নীল স্ক্রিন এসে পিসি বন্ধ করে দেয়, বা রিস্টার্ট নিয়ে আমাদের কাজের বারোটা বাজিয়ে দেয়! যদি প্রশ্ন করি ক’জন এমন সমস্যায় পড়েছেন? তবে বেশীরভাগ মানুষই হ্যাঁ বলবেন। এই ঝামেলা নিয়ে এবং এর সমাধানের টিপস ও ট্রিক্স নিয়েই আমার আজকের পোস্ট। চলুন তবে মূল বিষয়ে যাওয়া যাক।

Blue Screen of Death বা (BSOD) কী?

₪    Blue Screen of Death বা নীল স্ক্রিন প্রবলেম হচ্ছে মাইক্রোসফট উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের একটি আভ্যন্তরীণ সমস্যা যা কিনা হঠাত করে ঘটে যায় এবং এটি চলমান সকল প্রক্রিয়া সম্পাদন বন্ধ (Dead) করে দেয়!

BSOD কেন হয়ে থাকে?

₪    এই সমস্যাটি সাধারণত হার্ডওয়্যার বা ড্রাইভার গুলোর কারণে সংঘটিত হয়ে থাকে। হার্ডওয়্যার বা ড্রাইভারে কখনো এই সমস্যা দেখা দিলে Blue Screen এসে হাজির হয়, যা কিনা মূলত ডাটা ও হার্ডওয়্যারকে সম্ভাব্য ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করে।

 

BODS দেখতে নিচের চিত্র গুলোর মতন। [Image Source: google]

Fig 1 win 8

Fig 2 win 7

সমাধানের উপায়:

কিছু আগেই আমি বলেছি, হার্ডওয়্যার ও ড্রাইভারে বিভিন্ন সমস্যার কারণেই BSOD –র সৃষ্টি হয়ে থাকে। এক এক সময় একেক ধরণের সমস্যার কারণে এটি হয়ে থাকে বলে এর সম্পূর্ণ সমাধানের নির্দিষ্ট কোন উপায় নেই। তবে কিছু ট্রিক্স অনুসরণ করলে আপনাকে এই সমস্যায় আর পড়তে হবে না বললেই চলে।

■    অপ্রয়োজনীয় স্টার্টাপ প্রোগ্রাম যা কিনা উইন্ডোজ চালু হবার সাথে সাথে চালু হয় সেগুলো সরিয়ে দিন।

আপনি যখন কিনা আপনার পিসি চালু করেন তখন উইন্ডোজ হার্ডডিস্ক থেকে স্টার্টাপ নেয়। সাথে সাথে আরো অনেক প্রোগ্রাম একই সময়ে চালু হয়ে চায়। ফলে স্টার্টাপে বিঘ্ন ঘটে BSOD এর সৃষ্টি করে। তাই অপ্রয়োজনীয় স্টার্টাপ প্রোগ্রামগুলো বন্ধ করে নিন। এর জন্য যা করতে হবে-

  • Run মেন্যুতে গিয়ে msconfig লিখে ইন্টার বাটন চাপুন।
  • Startup ট্যাবে চাপ দিয়ে অপ্রয়োজনীয় প্রোগ্রামগুলো আন-চেক করে “Apply”, “OK” দিয়ে বেরিয়ে আসুন।
  • পিসি-টি একবার রিস্টার্ট দিলেই কাজ শেষ হয়ে যাবে।

■    অপ্রয়োজনীয় এবং ব্যবহার করতে না জানা সফটওয়্যার মুছে ফেলুন।

অনেকেই আমরা না জেনে না বুঝে অনেক সফটওয়্যার ইন্সটল করতে থাকি! কিছু কিছু সফটওয়্যার আছে যা কিনা সরাসরি হার্ডওয়্যারের সাথে সম্পর্কিত। ফলে না বুঝে সফটওয়্যার ইন্সটল দিয়ে অনেক সময়ই আমাদের BSOD এর সম্মুখীন হতে হয়। তাই এই ধরনার সফটওয়্যার ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। আর যে সকল সফটওয়্যার সম্পর্কে উইন্ডোজ প্রায়ই আপনাকে সতর্ক করবে সেগুলো পিসি থেকে মুছে (uninstall) ফেলুন।

 

■    হার্ডওয়্যার ও ড্রাইভার সমূহ ঠিক মত লাগানো রয়েছে কিনা তা নিয়মিত পরীক্ষা করে দেখুন।

অনেক সময় হার্ডওয়্যারের কানেকশন সমস্যা থাকলে এই সমস্যা দেখা দেয়। যেমন কোন কারণে র‍্যাম নড়ে গিয়ে থাকলে, পিন পোর্ট গুলো ভালো মতন লাগানো না থাকলে, সিরিয়াল বাস গুলো যেমনতেমন ভাবে লাগানো থাকলে বা  অপটিক্যাল ড্রাইভার, ইউএসবি পোর্টে ঝামেলা থাকলে এই সমস্যা হয়ে থাকে। তাই বারবার নীল স্ক্রিন সমস্যা দেখা দিলে কষ্ট করে সব কানেকশন ঠিক আছে কিনা চেক করে দেখে নিন। প্রয়োজনে কানেকশন গুলো খুলে নিয়ে আবার ভালো মতন লাগিয়ে দিন।

 

আশা করি এই পোস্ট আপানকে এই যন্ত্রণাময় সমস্যা থেকে কিছুটা হলেও নিস্তার দেবে। সকলকে ধন্যবাদ।

Leave a Reply